জেলা পরিষদ সদস্য নজরুল হোসেনের উদ্যেগে প্রীতি সম্মিলন

মোট পড়া হয়েছে 536 

 

নিজস্ব প্রতিনিধি
সিলেট জেলা পরিষদের গত নির্বাচনে বিয়ানীবাজার তথা ১২নং ওয়ার্ড থেকে নজরুল হোসেনকে যোগ্য নেতৃত্ব হিসেবে নির্বাচন করা হয়েছে। আগামী নির্বাচনেও উন্নয়নবান্ধব নজরুল হোসেনকে বিজয়ী করে উপজেলার জনপ্রতিনিধিগণ ঐক্য ও সম্প্রিতির বার্তা দিবেন। জেলা পর্যায়ে এমন যোগ্য নেতৃত্বের প্রয়োজন আছে জানিয়ে বক্তারা বলেন, গত সাড়ে বছরের উন্নয়নে নজরুল হোসেন স্থানীয় সরকারে প্রতিনিধিত্বশীল জনপ্রতিনিধিদের চোখ খুলে দিয়েছেন। তার মাধ্যমে এই ওয়ার্ডের সকল ক্ষেত্রে অভূতপূর্ব উন্নয়ন সাধিত হয়েছে। দলীয় ও স্বজনপ্রীতির বাইরে থেকে তিনি জনপ্রতিনিধিদের সম্পৃক্ত করে যে কর্মযজ্ঞ চালিয়েছেন, তা সবার জন্য অনুকরণীয়।

শনিবার দুপুরে বিয়ানীবাজার পৌরশহরের একটি কমিউনিটি সেন্টারে সিলেট জেলা পরিষদের ১২নং ওয়ার্ডের (বিয়ানীবাজার) সদস্য নজরুল হোসেনের উদ্যোগে আয়োজিত প্রীতি সম্মিলনে উপজেলার ৮টি ইউনিয়ন ও পৌরসভার সকল জনপ্রতিনিধিদের উপস্থিতিতে বক্তারা এসব কথা বলেন।

জেলা পরিষদ সদস্য নজরুল হোসেনের সভাপতিত্বে এবং পরিচালনায় এতে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল কাশেম পল্লব। প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন বিয়ানীবাজার পৌরসভার মেয়র মো. আব্দুস শুকুর। প্রীতিভোজ পূর্ব আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বিয়ানীবাজার উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মো. জামাল হোসেন ও রুকসানা বেগম লিমা, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মুশফিকুর রহমান সাকিব, ইউপি চেয়ারম্যান আবুল খায়ের, চেয়ারম্যান মামুনুর রশীদ, চেয়ারম্যান আব্দুল মান্নান, চেয়ারম্যান জহুর উদ্দিন, চেয়ারম্যান গৌছ উদ্দিন, বিয়ানীবাজার প্রেসক্লাব সভাপতি সজীব ভট্টাচার্য্য ও সাধারণ সম্পাদক মিলাদ মো. জয়নুল ইসলাম।

এতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে আবুল কাশেম পল্লব বলেন, যে কোন নির্বাচনে যোগ্য নেতৃত্ব নির্বাচিত করতে আপনার আমানত ব্যয় করতে হবে। তা নাহলে পরকালে জবাব দিতে হবে।

প্রধান আলোচক মেয়র মো. আব্দুস শুকুর বলেন, সরকার স্থানীয় সরকারের সকল কাঠামো শক্তিশালী করতে কাজ করছে। আর এতে তৃণমূল পর্যায়ের জনপ্রতিনিধিরা সহযোগীতা করছেন।

জেলা পরিষদ সদস্য নজরুল হোসেন বলেন, রাজনীতি নয়, মানুষের চাহিদা বিবেচনায় উন্নয়ন করছে জেলা পরিষদ। এ ধারা অব্যাহত রাখতে তিনি সকল জনপ্রতিনিধির সহযোগীতা কামনা করেন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *