বিয়ানীবাজার থেকে শ্বশুড়ের গরু চুরি করে বড়লেখায় ধরা খেলো জামাতা!

বিয়ানীবাজারের ডাকঃ

বিয়ানীবাজার থেকে চাচা শ্বশুড়ের গরু চুরি করে বড়লেখার একটি কোরবানির পশুর হাটে বিক্রয়কালে হাতেনাতে ধরা পড়েছেন জামাতা। বুধবার বিকালে বড়লেখা উপজেলার বর্ণী ইউনিয়নের ফকিরবাজার হাটে এ ঘটনা ঘটে। পরে ওই জামাতাকে স্থানীয়রা গরুসহ বিয়ানীবাজার থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করে। আটককৃত সোহেল আহমদ (২৮) লাউতা ইউনিয়নের নন্দিরফল এলাকার মোজেম্মেল আলীর পুত্র।

জানা গেছে, মঙ্গলবার দিবাগত রাতে সুযোগ বুঝে উপজেলার মোল্লাপুর ইউনিয়নের পাতন উছপাড়া গ্রাম থেকে চাচা শশুরের একটি গরু চুরি করে নিয়ে যায় জামাতা সোহেল আহমদ। পরে বুধবার বিকালে চুরিকৃত গরুটি বিক্রি করতে পার্শ্ববর্তী বড়লেখা উপজেলার বর্ণি ইউনিয়নের ফকিরবাজার কোরবানির পশুর হাটে নিয়ে যায় সে। ফকিরবাজার হাটে গরুটির দাম তুলনামূলক কম চাওয়া এবং তাড়াহুড়ো করে বিক্রয়ের জন্য ব্যস্ত হয়ে উঠে সোহেল আহমদ। পরে স্থানীয়দের সন্দেহের উদ্রেগ হলে তারা তাকে আটক করে বর্ণী ইউনিয়নে রাখেন। পরে খবর পেয়ে গরুসহ জামাতাকে আটক করে বিয়ানীবাজার থানায় নিয়ে আসে পুলিশ।

চোরাই গরুসহ সোহেল আহমদ নামের একজনকে আমরা আটকের তথ্য নিশ্চিত করে বিয়ানীবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অবনী শংকর কর জানান, এ ঘটনায় বুধবার গরুর মালিক বিয়ানীবাজার থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

সূত্রঃ সুরমা নিউজ ২৪.নেট

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.