বিয়ানীবাজারের ৪৩ মন্ডপে শুরু হচ্ছে শারদীয় দূর্গাপূঁজা

মোট পড়া হয়েছে 267 

 

সজীব ভট্টাচার্য্য
সনাতন ধর্মবলম্বীদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব শ্রী শ্রী শারদীয় দুর্গোৎসব ব্যাপক উৎসাহ উদ্দিপনার মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে। ২২ অক্টোবর দেবীর ষষ্টাদি কল্পারম্ভ এবং সায়ংকালে দেবীর বোধন আমন্ত্রণ ও অধিবাসের মধ্য শ্রী শ্রী শারদীয় দুর্গোৎসবের সূচনা ঘটবে। দুর্গোৎসবকে লক্ষ্য করে মন্ডপে মন্ডপে চলছে প্রতীমা তৈরির কাজ। দুর্গোৎসবকে কেন্দ্র করে হিন্দু সম্প্রদায়ের মধ্যে দেখা দিয়েছে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনা। এ বছর বিয়ানীবাজার উপজেলায় ৪৩টি মন্ডপে শারদীয় দুর্গোৎসব পালিত হবে। তন্মধ্যে ৩৪টি সার্বজনীন ও ৯টি ব্যক্তিগত পূজা মন্ডপ রয়েছে। এসকল মন্ডপে নিরাপত্তা রক্ষায় পুলিশ বিভিন্ন স্তরের নিরাপত্তা বলয় গ্রহণ করেছে। যথাযথ নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পুলিশ প্রশাসন থেকে ইতোমধ্যে রুটিন মাফিক প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। প্রসিদ্ধ পঞ্জিকা অনুযায়ী ২৩ অক্টোবর শ্রী শ্রী শারদীয়া দুর্গা দেবীর নবপত্রিকায় প্রবেশ, স্থাপন, সপ্তম্যাদি কল্পারম্ভ ও সপ্তামি বিহিতপূজা প্রশস্তা। ২৪ অক্টোবর দুর্গোদেবীর মহাষ্টম্যাদি কল্পারম্ভ। মহাষ্টী বিহিত পূজা, সন্ধিপূজা, বলিদান। ২৫ অক্টোবর মহানবমী বিহিত পূজা। ২৬ অক্টোবর দেবীর দশমী বিহিত পূজা, সমাপনান্তে বিসর্জন প্রশস্থা, বিজয় দশমী কৃত্য, বিসর্জনান্তে অপরাজিতা পূজা। এ বছর আয়োজিত সার্বজনীন দুর্গা মন্ডপগুলো হচ্ছে বিয়ানীবাজার পৌরশহরের দাসগ্রামস্থ শ্রী শ্রী কালাচাঁদ মন্দির, সুপাতলাস্থ শ্রীবাস সংঘ, ফতেহপুর বড়বাড়িস্থ শ্রী রামকৃষ্ণ মিশন, দক্ষিণ নয়াগ্রামে পংকজ মজুমদার ও কসবা চালিকোণায় ঠাকুর মণি বিশ্বাস, আলীনগর ইউনিয়নের রায় খাইল বিষ্ণু রঞ্জন দে, সার্বজনীন পূজা আলীনগর, নইরচকে নিখিল দাস, চারখাই ইউনিয়নের মনপুরে সুন্দর রাম বিশ্বাস, দেউলগ্রাম মহাপ্রভুর আখড়ায় রঞ্জিত দাস ঝুনু, কাকুরায় সজল দাস, কুমড়াইন গোপেন্দ্র বিশ্বাস, সাচানে সাধন দে, সাফায় বাচসপতি দে। শেওলা ইউনিয়নের আলীপুরে অরুন কুমার বিশ্বাস, ঢেউনগরে প্রিয় রঞ্জন বিশ্বাস, দত্তগ্রামে মিঠন দাস, কোনা শালেশ্বর সাধন চন্দ্র পাল। দুবাগ ইউনিয়নে নয়াদুবাগে সুদীপ্ত দাস, বড়গ্রাম প্রভাত দাস। তিলপারা ইউনিয়নের সানেশ্বর বাজার কেশব দাস, সানেশ্বর পশ্চিম পাড়া মন্টু দাস, উলুউরিতে কর্ণমণি দাস, মধ্যপাড়ায় বিজিত দাস, তিলপারায় রবিন্দ্র দাস। কুড়ার বাজার গোবিন্দশ্রী গ্রামের অর্পূব পুরকায়স্থ। মুড়িয়া ইউনিয়নের কোণাগ্রামে বিভু পাল এবং লাউতা ইউনিয়নের মহাপ্রভুর আখড়া রাজীব চন্দ্র দাস, কাজল মালাকার এবং গজারাইয়ে মনোরঞ্জন বিশ্বাস। ব্যক্তিগত পূজা মন্ডপগুলোর মধ্যে বিয়ানীবাজার পৌরশহরের নয়াগ্রামে বাবুল ধর, পিযুষ কান্তি দে ও সুদর্শন ভট্টাচার্য, দাসগ্রামে অমিতাভ পাল চৌধুরী, দুবাগের হাজরা পাড়ায় হিমাংসু দাস এবং লাউতা ইউনিয়নের বিনেন্দু ভূষণ চক্রবর্তী এবং লাউতায় সজল কুমার পাল, রনজিত দেব, আলীনগর ইউনিয়নের নিরঞ্জন দে। বাংলদেশ পুঁজা উদযাপন পরিষদ বিয়ানীবাজার উপজেলা শাখার সভাপতি সুজিত চক্রবর্তী, সাধারণ সম্পাদক অরুনাভ পাল চৌধুরী মোহন এক বিজ্ঞপ্তিতে শান্তিপূর্ণভাবে পুঁজা উদযাপনে সকলের সহযোগিতা কামনা করেছেন।

 

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *