বিয়ানীবাজারের ঘরে ঘরে সর্দি-জ্বরের প্রকোপ

বিয়ানীবাজারের ডাকঃ

বিয়ানীবাজারে হঠাৎ করেই সর্দি-জ্বর এবং গলা ব্যথা রোগের প্রকোপ দেখা দিয়েছে। ঘরে ঘরে সর্দি-জ্বরে আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া যাচ্ছে। সাধারণত আবহাওয়ার পরিবর্তনের কারনে বাংলাদেশে এ সময়টাতে জ্বরের প্রকোপ এমনিতেই বৃদ্ধি পায়। বিষয়টি তেমন ভয়ের কিছু না হলেও এবারের জ্বরের মাত্রাটা অন্যবারের চাইতে বেশি। বিগত বছরগুলোতে দেখা গেছে- ভাইরাস জ্বর ৪-৫ দিনে সেরে গেলেও এবারে রোগীকে বিছানায় ফেলে রাখছে ১০-১২ দিন। জ্বরে আক্রান্ত কয়েকজনের সঙ্গে কথা বলে এমনটাই জানা গেছে।

গত দু-তিন সপ্তাহ থেকে বিয়ানীবাজার উপজেলার প্রতিটি এলাকায় শিশু থেকে বৃদ্ধ সকল বয়সের মানুষই পড়ছেন এ জ্বরের কবলে। তবে করোনা আতংকে অনেকেই কোন চিকিৎসকের শরণাপন্ন না হয়ে পরীক্ষা ছাড়াই ফার্মেসি থেকে ঔষধ কিনে খাচ্ছেন।

এদিকে, ভাইরাসজনিত এ জ্বর অনেকের ভেতরে দেখা দিয়েছে করোনা আতঙ্ক। তবে এতে আতঙ্কিত না হওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন স্বাস্থ্যবিশেষজ্ঞরা।

চিকিৎসকরা বলছেন, তাপমাত্রার উঠা-নামা, হঠাৎ গরম ও হঠাৎ ঠান্ডা লাগা এবং সর্বোপরি সিজনাল (ঋতু পরিবর্তনজনিত) কারণে এ রোগের প্রাদুর্ভাব দেখা দিয়েছে। এই জ্বর হলে শীত শীত ভাব, মাথা ব্যথা, শরীরে ও গিরায় ব্যথা, খাওয়ায় অরুচি, ক্লান্তি, দুর্বলতা, নাক দিয়ে পানি পড়া, চোখ দিয়ে পানি পড়া, চোখ লাল হওয়া, চুলকানি, কাশি, অস্থিরতা ও ঘুম কম হতে পারে।

অপরদিকে, বিশেষজ্ঞদের মতে আসন্ন শীতে বাংলাদেশে করোনার দ্বিতীয় তরঙ্গ দেখা দিতে পারে। তাই এখন থেকেই সাবধানতা অবলম্বন করে চলতে হবে। বাধ্যতামূলকভাবে মাস্ক পরিধান করতে হবে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.