বিয়ানীবাজারের ঘরে ঘরে করোনা পৌঁছতে বেশি দেরি নেই!

মোট পড়া হয়েছে 199 

৪৮ ঘণ্টায় শনাক্ত ২৮, মৃত্যু ১

বিয়ানীবাজারের ডাকঃ
বিয়ানীবাজারে গত কয়েকদিন ধরে যে হারে বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা, তাতে ঘরে ঘরে ভাইরাসটি পৌঁছাতে আর বেশি দেরি নেই বলে মন্তব্য করছেন সংশ্লিষ্টরা। বিয়ানীবাজার উপজেলায় গত ৪৮ ঘণ্টায় কোভিড-১৯-এ পজেটিভ শনাক্ত হয়েছেন আরও ২৮ জন। এরমধ্যে জলঢুপ এলকার শ্যামল রায় নামে একজন সিলেট নর্থ ইষ্ট হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। গতকাল তার করোনার রিপোর্ট আসার পর জানা যায় তিনি করোনায় মারা গেছেন।

বিভাগীয় পরিচালক (স্বাস্থ্য) কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, আজ সোমবার (২৯ জুন) সকাল ৮টা পর্যন্ত সিলেট বিভাগে মোট আক্রান্ত হয়েছেন মোট ৪২৯৩ জন। এর মধ্যে সিলেট জেলায় ২৩৪৮, সুনামগঞ্জে ৯৭২, হবিগঞ্জে ৫৫৪ ও মৌলভীবাজার জেলায় ৪১৯ জন।

সিলেট অঞ্চলে করোনা আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে আজ পর্যন্ত ভর্তি আছেন ৩১০ জন। এর মধ্যে সিলেটে ১৪২, সুনামগঞ্জে ৯২, হবিগঞ্জে ৬৪ ও মৌলভীবাজারে ১২ জন।

এছাড়া করোনা পজেটিভ ও উপসর্গযুক্ত- সব মিলিয়ে বিভাগজুড়ে হাসপাতালে ভর্তি রোগীর সংখ্যা মোট ৬৯৫ জন।  এর মধ্যে সিলেটে ২৬৪, সুনামগঞ্জে ২৪৫, হবিগঞ্জে ১৬৪ ও মৌলভীবাজারে ২২ জন। তারা সংশ্লিষ্ট জেলা ও উপজেলা হাসপাতাল এবং স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সগুলোতে চিকিৎসাধীন।

এদিকে, সিলেট বিভাগে করোনামুক্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরেছেন ৮২ জন। এর মধ্যে সিলেটে ৪৮, সুনামগঞ্জে ২১  ও মৌলভীবাজারে ১৩ জন।  আর এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ১১৬৫। এর মধ্যে সিলেটে ৩৯৩, সুনামগঞ্জে ৩৯৫, হবিগঞ্জে ১৯১ ও মৌলভীবাজারে ১৮৬ জন।

বিভাগীয় পরিচালক (স্বাস্থ্য) কার্যালয় সূত্রে আরও জানা গেছে, গত ১০/৩/২০২০ ইংরেজি তারিখ হতে আজ সকাল ৮টা পর্যন্ত সিলেট বিভাগে হোম কোয়ারেন্টিনে পাঠানো হয়েছে ১৫৩১৫ জনকে এবং কোয়ারেন্টিন থেকে ছাড়পত্র দেয়া হয়েছে ১৪২৯০ জনকে।
বর্তমানে হোম কোয়ারেন্টিনে অবস্থান করছেন ১০২৫ জন। এর মধ্যে সিলেটে ৪৫১, সুনামগঞ্জে ৩২৩, হবিগঞ্জে ৮১ ও মৌলভীবাজারে ১৭০ জন।

আজ পর্যন্ত হাসপাতালে কোয়ারেন্টিনরত আছেন বিভাগের ২৮১ জন। এর মধ্যে সিলেটে ৮০, সুনামগঞ্জে ৩৫, হবিগঞ্জে ১২৯ ও মৌলভীবাজারে ৩৭ জন। তারা সংশ্লিষ্ট জেলা ও উপজেলা হাসপাতাল এবং স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সগুলোতে কোয়ারেন্টিনরত।

এদিকে, সিলেট বিভাগে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা কেড়ে নিয়েছে আরও ৩ জনের প্রাণ। এর মধ্যে দুইজন সিলেটের এবং অপরজন সুনামগঞ্জের।  নতুন এই তিনজনকে নিয়ে সিলেটে ৭৩ জনে দাঁড়ালো মোট মত্যুর সংখ্যা। এর মধ্যে সিলেট জেলায় ৫৭, সুনামগঞ্জে ৬, হবিগঞ্জে ৬ ও মৌলভীবাজারে ৪ জন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *