মোটরসাইকেল চোর সন্তানকে পুলিশের হাতে তুলে দিলেন মা

মোট পড়া হয়েছে 143 

বিয়ানীবাজারের ডাক ডেস্কঃ 

নগরের রিয়াজউদ্দিন বাজার তামাকুমুন্ডি লেইন এলাকায় রাস্তার পাশে মোটরসাইকেল পার্কিং করে মোবাইল মেরামত করতে যান মো. আশফাক হোসেন। এসে দেখেন তার মোটরসেইকেলটি নেই।

পরে কোতোয়ালী থানা পুলিশের শরণাপন্ন হন আশফাক হোসেন।

পুলিশ মোটরসাইকেলটি উদ্ধারে অভিযানে নামে। খবর পেয়ে আসকার দিঘির দক্ষিণ পাড়ের শতদল ক্লাবের পাশে একটি গলিতে মো. তুহিন ভূঁইয়া (২২) নামে এক যুবকের হেফাজত থেকে আশফাক হোসেনের মোটর সাইকেলটি উদ্ধার করা হয়।

নিজের সন্তান মোটরসাইকেল চুরির সঙ্গে জড়িত বিষয়টি জানতে পেরে ছেলে মো. তুহিন ভূঁইয়াকে বাড়ি থেকে পালাতে দেননি পারভিন আক্তার।

পরে পারভিন আক্তার নিজেই ছেলে তুহিনকে পুলিশের গাড়িতে তুলে দেন।

তুহিনের বিরুদ্ধে মোটরসাইকেল চুরির অপরাধে কোতোয়ালী থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

তুহিন ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার সদর উপজেলার সুলতানপুর এলাকার মো. কোকন ভুঁইয়ার ছেলে। তিনি কোতোয়ালী থানাধীন আসকার দিঘির দক্ষিণ পাড় এলাকায় বসবাস করেন।

কোতোয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মহসীন বলেন, রিয়াজউদ্দিন বাজার তামাকুমুন্ডি লেইন এলাকা থেকে মোটরসাইকেল চুরির অপরাধে আসকার দিঘির দক্ষিণ পাড় এলাকা থেকে মো. তুহিন ভূঁইয়া নামে এক যুবককে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার হেফাজত থেকে চুরি করা মোটরসাইকেলটি উদ্ধার করা হয়েছে।

ওসি মোহাম্মদ মহসীন বলেন, তুহিন মোটরসাইকেলটি চুরির পর আসকার দিঘির দক্ষিণ পাড়ের শতদল ক্লাবের পাশে একটি গলিতে লুকিয়ে রাখে। পুলিশ মোটরসাইকেলটি উদ্ধার করে। মোটরসাইকেল চুরির সঙ্গে তুহিন জড়িত বিষয়টি জানতে পেরে তার পারভিন আক্তার তুহিনকে বাড়ি থেকে পালাতে দেননি। তিনি নিজেই তুহিনকে পুলিশের গাড়িতে তুলে দেন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *