বড়লেখায় ৩০টি ভারতীয় মহিষ আটক

মোট পড়া হয়েছে 147 

বিয়ানীবাজারের ডাক ডেস্ক:

 মৌলভীবাজারের বড়লেখার সীমান্ত দিয়ে অবাধে ভারতীয় মহিষ আসার পর অবশেষে নড়েচড়ে উঠেছে বিজিবি। উপজেলার সদর ইউনিয়নের গঙ্গারজল এলাকা থেকে চোরাই পথে আসা ৩০টি ভারতীয় মহিষ আটক করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)। এ সময় বিজিবির উপস্থিতি টের পেয়ে চোরাকারবারী দল পালিয়ে যায় বলে বিজিবির দাবি। বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে মহিষগুলো আটক করা হয়।
বিয়ানীবাজার বিজিবি (৫২ ব্যাটালিয়ন) ও এলাকাবাসী সূত্র জানায়, বৃহস্পতিবার (২৫ জুন) সকালে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিজিবি সদস্যের একটি টহলদল উপজেলার গঙ্গারজল এলাকায় অবস্থান নেয়। সকাল সাড়ে ৮টার দিকে সীমান্ত এলাকা থেকে চোরাকারবারীরা পৌর শহরের দিকে মহিষ নিয়ে যাচ্ছিলো। এ সময় বিজিবির উপস্থিতি টের পেয়ে চোরাকারবারীরা মহিষ রেখে পালিয়ে যায় বলে বিজিবির দাবি। পরে বিজিবি টহলদল মালিকবিহীন অবস্থায় ৩০টি ভারতীয় মহিষ আটক করে। গঙ্গারজল এলাকাটি ভারত সীমান্তের ১৩৮২/৪-এস পিলার হতে ৭ কিলোমিটার অভ্যন্তরে। অভিযানে বিজিবির জুড়ী কোম্পানী’র টহল কমান্ডার জেসিও-৭১০০ সুবেদার ইমাম হোসেনের নেতৃত্বে বিওসিটিলা, লাতু এবং বোবারথল বিওপি’র বিজিবি সদস্যরা অংশ নেন।
বিয়ানীবাজার বিজিবি ৫২ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেঃ কর্নেল গাজী শহীদুল্লাহ এর সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, আটক মহিষের আনুমানিক বাজারমূল্য ১৮ লাখ ২০ হাজার টাকা। আটককৃত মহিষগুলো জুড়ী কাস্টমস হাউজে জমা দেওয়া হয়েছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *