উপজেলা চেয়ারম্যান পল্লবের লক্ষ্য অনেক, গন্তব্যে বহুদূর…

মোঃ জাকির হোসেন, নিউইয়র্ক থেকেঃ

প্রতিনিধিত্ব আর পরিচালনা করা সহজ মনে হলে বাস্তবতা অনেক কঠিন। জনগনের দায়িত্ব কাঁধে নিয়ে যর্থাথ ভাবে পালন করাসহ উপজেলার জনগনের প্রয়োজনে পাশে থাকা বর্তমান চেয়ারম্যান পল্লবের নৈতিক দায়িত্ব।
জানা যায়, বিয়ানীবাজার উপজেলার চেয়ারম্যান সাধারণ জনগনের আস্থার পথিক হয়ে দাড়িয়েছেন। সাধারনের ভরসা বর্তমান চেয়ারম্যান আবুল কাশেম পল্লব।ছাত্র রাজনীতি থেকে উঠে আসা পল্লব উপজেলা ব্যাপী চষে বেড়াচ্ছেন। সুখ দুঃখের খবরা-খবর নিচ্ছেন প্রতিনিয়ত। যেখানে সমস্যা সেখানেই সমাধানের অগ্রসৈনিক তিনি।

শিক্ষা জিবনে ছাত্র রাজনীতির অঙ্গনে তার উত্থান অনেকটা কোনটাসার মধ্যে দিয়ে। বর্তমান পল্লবের জনপ্রিয়তা অনেক তুঙ্গে। গত বছরের ১৮ মার্চ (২০১৯ইং) উপজেলা নির্বাচেন জয় পরবর্তী ১৪ মে ২০১৯ ইং উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্বভার গ্রহণ করেন আবুল কাশেম পল্লব। দায়িত্বভার নেওয়ার পর থেকে অত্যন্ত সাবধানতা অবলম্বন করে কার্যক্রম অব্যাহত চালিয়ে যাচ্ছেন। চলতি বিশ্ব বিপর্যয়ের মধ্যে থেমে নেই। জনগনকে ইফতারি প্রথার বিরুদ্ধে রুখে দাড়ানোর আহবানের পাশাপশি সচেতনতার বাড়ানোর জোর দাবি জানান।
তাছাড়া ছাত্রলীগের রাজনীতিতে অনেকটা কোনটাসা স্হানীয় আওয়ামীলিগের শরনাপন্ন হয়ে ও দলীয় মনোনয়ন না পেয়ে অনেকটা নিরুপায় হয়ে বিদ্রোহী প্রার্থী হয়ে নির্বাচন করেন। সে সময় (২০০৯ ইং) উপজেলার তরুন-যুবক-মুরব্বিরা জোট বেধে দল মত নির্বিশেষ (ফুটবল প্রতিক) ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত করেন। সরকারী দলের প্রার্থীর বিরুদ্ধে জয় লাভ করার উদাহরণ সৃষ্টি করেন।

            আরোও পড়ুনঃ দেশের মানুষকে করোনার চিকিৎসা দিতে আমেরিকা থেকে আসছেন ড. ফেরদৌস


কলেজ ছাত্র রাজনীতি থেকে উপজেলা পরিষদ। জনগনের প্রতিনিধির দায়িত্বে আসতে অনেক কাটঘর পোহাতে হচ্ছে।বিশেষ করে রাজনৈতিক ভাবে পল্লবকে হেস্তা নেস্তা হতে হয়েছে। তারপর ও তিনি হাল ছাড়েননি। স্থানীয় নেতৃবৃন্দ থেকে শুরু করে কেন্দ্রীয় অনেক নেতৃবৃন্দ তাঁর বিরুধীতা করলে ও অনেকে আবার আড়ালে গুপনে সহযোগিতা করেছেন।পল্লবের নাম-ডাক উপজেলা পর্যায় পেরিয়ে অন্য উপজেলায় সয়লাব করছে।পল্লবের লক্ষ্যে অনেক – গন্তব্যে বহুদুর- তবে তার লক্ষ্যে ও গন্তব্যে পৌছতে আদৌ কতটুকু সফল হয়েছেন। তার জবাব জনগনের কাছে।

উপজেলার জনগনের ভালবাসার ফসল আবুল কাশেম পল্লব, জনগনের ভালবাসার প্রতিদানের বিনিময়ে ইউনিয়ন গ্রাম গঞ্জে অবেহেলিত লোকজনের পাশে সর্বদা রয়েছেন। সরকারী তহবিলের সাহায্যের অনুদান ইউনিয়নের হতদরিদ্র -অবহেলিতদের চিন্হিত করে দেওয়ার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। কেন না তিনি তাদের ভোটে নির্বাচিত চেয়ারম্যান।
জনগনের প্রতিনিধির দায়িত্ব নেওয়ার চলতি মাসের ১৩ মে (২০২০ ইং) বছর অতিবাহিত হলে ও জনগনকে নির্বাচনের প্রতিশ্রুত দেওয়া জনগনের পাশে থাকা, প্রতিদিন সামাজিক মিডিয়া কল্যাণে প্রকাশ পাচ্ছে অহরহ হারে।

চেয়ারম্যান পল্লবের নির্বাচনী অজ্ঞিকার উপজেলার জনগনের সুখে-দু:খে পাশে থাকার প্রত্যয়ে বর্তমানে কবিড-১৯ এর মহা বির্পযের সচেতনা হওয়াসহ অসহায় মানুষের পাশে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়ার কাজ আব্যাহত রয়েছে। ছুটে চলেছেন উপজেলার অবহেলিত জনপদে।এমনকি দিন রাত উপজেলার হত দরিদ্র অসহায়দের মধ্যে নিজেকে নিয়োজিত রেখেছেন। উপজেলার জনগনের বিপদের বন্ধু উপজেলা চেয়ারম্যান অল্প সময়েই সবার ভালবাসায় মুগ্ধ।
অনেক ঘাত প্রতিঘাত পেরিয়ে উঠে আসা রাজনৈতিক কর্মী, কর্মী থেকে নেতা, নেতা থেকে জনগনের নির্বাচিত প্রতিনিধিরা জনগনকে কখনো ভুলে না। কারন জনগনই তাদের এগিয়ে যাওয়ার শক্তি।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.