অন্যরকম আয়োজনে ‘কৃষকের ঈদ আনন্দ’

বিয়ানীবাজারের ডাক ডেস্ক:

করোনাভাইরাস কেড়ে নিয়েছে পৃথিবীর মানুষের স্বস্তি। বাংলাদেশের মানুষও গত পাঁচ মাস ধরে লড়ে যাচ্ছে এই অদৃশ্য ভাইরাসের বিরুদ্ধে। লাখ লাখ মানুষ কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়েছেন। আমরা ইতিমধ্যে হারিয়েছিও অনেককেই। এদিকে স্থবির অর্থনীতির একমাত্র হাতিয়ার কৃষি। এর মাঝেও হানা দিয়েছে ঘূর্ণিঝড় আম্ফান। দেশের উত্তরাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে বন্যায়। যেন দুর্যোগের শেষ নেই, শেষ নেই দুর্দিনের।

সভ্যতার সূচনা থেকে মানুষকে সব সময়ই মোকাবিলা করতে হয়েছে দুঃসময়ের। জীবন মানেই এক যুদ্ধ, টিকে থাকার জন্য প্রতিনিয়তই লড়ে যেতে হয় প্রকৃতির সঙ্গে, মানুষের সঙ্গে। ফলে বলা যায় জীবন মূলত আনন্দ বেদনার মিলনগাথা। বিশেষ করে বাংলাদেশের কৃষকের জীবন এক দক্ষ যোদ্ধার জীবন। শত প্রতিবন্ধকতা পেরিয়ে মাটির বুক চিরে ঠিকই ফলিয়ে আনছে সোনার ফসল। কৃষকের কান্না আমাদের কান্না না হলেও, কৃষকের হাসিই আমাদের হাসি। কৃষকের হাসি-কান্না নিয়ে প্রতি ঈদে গল্প গাঁথেন শাইখ সিরাজ তার ‘কৃষক ঈদ আনন্দ’ অনুষ্ঠানে। জীবন যুদ্ধের কঠোরতাকে পেলব করতে কৃষকদের নিয়ে খেলায় মাতেন। গ্রামীণ খেলাধুলার অনাবিল আনন্দে মাতিয়ে তুলেন বাংলার কৃষকদের। পাশাপাশি থাকে ক্যামেরার লেন্সে তুলে আনা দেশ- বিদেশের বিস্ময়কর নানান গল্প। এবারের কৃষকের ঈদ আনন্দ সাজানো হয়েছে অন্যরকম আয়োজনে। অন্যান্য আকর্ষণীয় প্রতিবেদনের সঙ্গে থাকছে ইতিহাসের প্রাচীন কৃষি সভ্যতার সূচনাকারী নীল নদের উৎসের সন্ধান, নুরেমবার্গ ট্রায়াল, ভাস্কোদা গামার খোঁজে প্রভৃতি প্রতিবেদন। থাকছে বাংলাদেশের চলচ্চিত্রের অনিন্দ্য নায়িকা ববিতার চলচ্চিত্র কথা। শাইখ সিরাজের পরিকল্পনা, পরিচালনা ও উপস্থাপনায় কৃষকের ঈদ আনন্দ প্রচার হবে ঈদের পরদিন বিকাল ৪টা ৩০ মিনিটে চ্যানেল আইতে।

সুত্র: মানবজমিন

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.