সিলেটের দক্ষিণ সুরমায় বাস উল্টে কিশোরীসহ দু’জনের মৃত্যু!

বিয়ানীবাজারের ডাকঃ  

সিলেট-ঢাকা মহাসড়কের দক্ষিণ সুরমায় যাত্রীবাহি বাস উল্টে মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় ঘটনাস্থলেই দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। নিহতদের মধ্যে একজন কিশোরী ও অপরজন বাসটির হেলপার।

শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় দক্ষিণ সুরমার ওতিরবাড়ি নামক স্থানে এ ঘটনা ঘটে। শেরপুর থেকে সিলেটগামী যাত্রীবাহি বাসের চাকা ফেটে খুলে গেলে এ দুর্ঘটনাটি ঘটে। এ তথ্যটি নিশ্চিত করেন দক্ষিণ সুরমা থানার ওসি আখতার হোসেন।

এ ঘটনায় আহত আরো ১০ জন যাত্রী। এদের মধ্যে আশঙ্কাজনক ২ জনকে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। রাত ৯টায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত মর্মান্তিক এ সড়ক দুর্ঘটনায় ওই এলাকায় তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়। রাস্তার দু’পাশে কয়েক কিলোমিটারজুড়ে আটকা পড়ে শত শত গাড়ি। ফায়ার সার্ভিস কর্মী ও পুলিশ সদস্যরা দুর্ঘটনা কবলিত গাড়িটি তুলে যানজট নিরসনের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছিলেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার বিকেলে শেরপুর থেকে ছেড়ে আসা সিলেটগামী একটি বাস সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় দক্ষিণ সুরমার ওতিরবাড়ি নামক স্থানে আসলে সামনের একটি চাকা ফেটে খুলে যায়। এতে চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেললে খাদে পড়ে গিয়ে বাসটি উল্টে যায়। পরে ঘণ্টাখানেক পর পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা ঘটনাস্থলে এসে বাসের নিচ থেকে চাপা পড়া যাত্রীদের উদ্ধার করেন। এসময় এক কিশোরীসহ দুইজনের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়।

ওসমানী হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, দুর্ঘটনার পর হাসপাতালের জরুরী বিভাগে পাঁচজন প্রাথমিক চিকিতসা নেন। আর দুইজন গুরুতর অবস্থায় ভর্তি আছেন।নিহতরা হলেন, বাসের হেলপার আলী আছগর ও বালাগঞ্জ উপজেলার চান্দাইপাড়া গ্রামের লেবু মিয়ার মেয়ে উর্মি বেগম (১৩)। এ ঘটনায় উর্মির মা-বাবা, মামাসহ আরো চারজন আহত হয়েছেন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.