বিয়ানীবাজারে করোনা সহায়তায় ৬ বছরের শিশুর মানবতা; মাটির ব্যাংকে জমানো সঞ্চয় দান

মোট পড়া হয়েছে 190 

মুকিত মুহাম্মদঃ

বৈশ্বিক মহামারি প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসে সারাবিশ্বে আজ টালমাটাল অবস্থা। কখনও ইউরোপ কিংবা আমেরিকা, এশিয়া থেকে আফ্রিকা কোথাও বাদ নেই করোনার ছোবল। সবাই এখন নিজেকে বাঁচাতেই ব্যস্ত। এই মহামারী করোনার ছোবল মোকাবেলায় দীর্ঘ তিন বছর থেকে মাটির ব্যাংকে জমানো টাকা দান করলো বিয়ানীবাজারের ৬ বছর বয়সী শিশু সাদাত এবাদ। মাত্র প্রথম শ্রেণীতে অধ্যয়নরত সাদাত এবাদ জেনে গেছে “মানুষ মানুষের জন্য”।

বৃহস্পতিবার (০৪ জুন) রাত ৯ টায় বিয়ানীবাজার পৌরসভার মেয়র মোঃ আব্দুস শুকুর এর হাতে তার এ সঞ্চয় হস্তান্তর করে। দি লাইট হাউস একাডেমি ১ম শ্রেণির ছাত্র সাদাত এবাদ পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবাদ আহমদের কনিষ্ঠ পুত্র। করোনার ভয়াবহ পরিস্থিতিতে রোগ নির্ণয়ে ব্যয়ের জন্যই সাদাতের এই টাকা দান। সাদাতের সহায়তায় মুগ্ধ বিয়ানীবাজার পৌরসভার মেয়র মোঃ আব্দুস শুকুর।

পৌর মেয়র মোঃ আব্দুস শুকুর বলেন, মহামারি করোনা দূর্যোগে ছয় বছর বয়সী সাদাত এবাদের এই প্রয়াস অনেক বড়। সে এই বয়সে মানবিকতার দৃষ্টান্ত স্হাপন করেছে, করোনা ভাইরাসের নমুনা পরিক্ষার জন্য ২০০ কিট এর সমমূল্য ৬ হাজার টাকা দান করেছে। আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি ২শ’ করোনার কিট বিয়ানীবাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কিনে দেবো।

বিয়ানীবাজার পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাদাত এবাদের পিতা এবাদ আহমদ বলেন, করোনা পরিস্থিতিতে কর্মহীন ও নিম্ন আয়ের অসহায় মানুষকে অব্যাহতভাবে খাদ্য সহায়তা দিচ্ছেন মাননীয় মেয়র মহোদয়। ত্রাণ তহবিল গঠন করে নগরবাসীকে সহযোগিতার আহ্বানও জানিয়েছেন। মেয়র মহোদয়ের আহ্বানে সাড়া দিয়ে আমার ছেলে মানুষকে সহযোগীতা করার ইচ্ছে পূষণ করায় তার জমানো এই টাকা মেয়রের কাছে হস্তান্তর করেছি।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *