প্রিয়জন হারানোর চেয়ে কষ্টের কিছুই নেই: মেসি

মোট পড়া হয়েছে 120 

বিয়ানীবাজারের ডাক ডেস্ক:

করোনা নিয়ে ফের মুখ খুললেন বার্সেলোনার আর্জেন্টাইন সুপারস্টার লিওনেল মেসি। এ নিয়ে স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম ‘এল পায়েস’কে ভাবগাম্ভীর্যপূর্ণ সাক্ষাৎকার দিলেন তিনি। ছোট ম্যাজিসিয়ান জানালেন, শুধু ফুটবল নয়; সামগ্রিক জীবনের ওপরও প্রভাব পড়বে প্রাণঘাতী ভাইরাসের।

মূলত করোনাপরবর্তী সময়ে ফুটবল ও জীবন কেমন হতে পারে তা নিয়ে কথা বলেছেন মেসি। তিনি বলেন, সাধারণ দৃষ্টিকোণ থেকে দেখলে খেলাটি আগের মতো থাকবে না। জীবনাচরণও একই রকম বিদ্যমান থাকবে না। উভয়ের ক্ষেত্রে আমূল পরিবর্তন সাধিত হবে।

করোনা ধাক্কা কাটিয়ে ধীরে ধীরে ফিরতে শুরু করেছে ফুটবল। ইতিমধ্যে মাঠে গড়িয়েছে জার্মান বুন্দেসলিগা। সিরিএ, ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ ও লা লিগা ফেরার প্রহর গুনছে। ইতিমধ্যে অনুশীলন শুরু করেছে বার্সা। প্রিয় ক্লাব সতীর্থদের সঙ্গে প্র্যাকটিস আরম্ভ করেছেন মেসিও।

তিনি বলেন, কার্যত স্বাভাবিক পথে অনুশীলন ও প্রতিযোগিতামূলক লিগ শুরু হয়েছিল। এখন সেটি আবার সূচনা করতে হবে। তাও তা ধীরে ধীরে। আমাদের জন্য এটি অদ্ভূত পরিস্থিতি হবে। প্রত্যেককে সাধারণ কর্মকাণ্ডে বদল আনতে হবে। খেলোয়াড়দের গতিপথই পাল্টে দেবে আসন্ন অবস্থা।

ভিনগ্রহের ফুটবলার বলেন, লোকজন সত্যিই খুব খারাপ সময় কাটিয়েছে। অনেকে কঠিন সময় কাটাচ্ছে। কারণ কোনো না কোনোভাবে এ উদ্ভূত পরিস্থিতি তাদের ওপর প্রভার ফেলেছে। অসংখ্য মানুষ পরিবারেরই একজন কিংবা বন্ধুবর্গের কাউকে হারিয়েছেন। এমনকি তাদের বিদায়ও বলতে পারেননি তারা। আপনি যাকে সবচেয়ে ভালোবাসেন, তাকে হারানোর চেয়ে বেদনাদায়ক বা ব্যথাতুর কিছুই নেই। এটি আমার মাঝে ব্যাপক হতাশার সৃষ্টি করেছে। সবচেয়ে পীড়াদায়ক এটিই।

জীবনের ঝুঁকি নিয়ে মানবঘাতী করোনা প্রতিরোধে কাজ করে যাওয়া মানুষেরও প্রশংসা করেছেন মেসি। তিনি বলেন, যারা প্রিয়জন হারিয়ে ভুগছেন; তাদের প্রতি সমবেদনা জানাচ্ছি। একই সঙ্গে গভীর দুঃখ ও শোক প্রকাশ করছি। পাশাপাশি সেসব ভাইবোনের জ্ঞাতার্থে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করছি, যারা মৃত্যুঝুঁকি নিয়ে জীবনঘাতী অদৃশ্য ভয়াল ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়েছেন এবং লড়ছেন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *