দুই তিন মাসেই করোনায় শীর্ষে উঠবে ভারত

মোট পড়া হয়েছে 217 

বিয়ানীবাজারের ডাক ডেস্ক:

করোনা মহামারীর কারণে বিপর্যস্ত বিশ্ব। দক্ষিণ এশিয়ায় কোভিড-১৯ বা করোনা ভাইরাসে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হয়েছেন ভারতের নাগরিকরা। দেশটিতে প্রায় তিন মাসের লকডাউন কার্যকর থাকার পরও সংক্রমণ না কমে বরং বেড়েই চলছে। আগামী দুই থেকে তিন মাসের মধ্যে তা বিশ্বে শীর্ষে পৌঁছবে বলে আশঙ্কার কথা জানালেন দিল্লির ‘অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অফ মেডিক্যাল সায়েন্সেস (এমস)’র প্রধান রণদীপ গুলেরিয়া।

রণদীপ বলেছেন, ‘এখন যা পরিস্থিতি, তাতে ভারতে করোনা সংক্রমণের ঘটনা আরও বাড়তে চলেছে। আগামী দুই থেকে তিন মাসে তা শীর্ষে পৌঁছতে পারে।’ তবে জাতীয় স্তরের এ সংক্রমণ এখন পর্যন্ত গোষ্ঠী (কমিউনিটি লেভেলে) সংক্রমণের পর্যায়ে পৌঁছয়নি বলে জানিয়েছেন তিনি। এর আগেও এমনটি দাবি করেছিল সংস্থাটি। যদিও আগামী দিনে ভারতে গোষ্ঠী সংক্রমণের সম্ভাবনার কথাও বলছেন রণদীপ। তিনি বলেন, ‘দেশের যে যে এলাকাগুলিকে হটস্পট বলে চিহ্নিত করা হয়েছে, সেই সব এলাকায় গোষ্ঠী সংক্রমণের যথেষ্টই আশঙ্কা রয়েছে।’

এ দিকে রোববার সকালে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বুলেটিনে জানানো হয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৯ হাজার ৯৭১ জন। এক দিনে নতুন আক্রান্তের সংখ্যায় এটাই এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ। মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২ লাখ ৪৬ হাজার। এতে আক্রান্তের পরিসংখ্যান সামনে আসার পর বিশ্বের করোনা আক্রান্ত দেশসমূহের তালিকায় আরও এক ধাপ উপরে উঠে এল ভারত। এখন ভারতের স্থান পঞ্চম। ভারতের চেয়ে বেশি কোভিড আক্রান্ত রয়েছে মোট চারটি দেশে, আমেরিকা, ব্রাজিল, রাশিয়া এবং ব্রিটেন। রোববারের এই আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধির ফলে স্পেনেরও উপরে উঠে এলো ভারত।

সুত্র: ভোরের কাগজ

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.