ছয়মাসে আনুশকা ও কোহলি সংসার করেছেন মাত্র ২১ দিন

বিয়ানীবাজারের ডাক ডেস্ক:

লকডাউনের পূর্ণ ‘সুফল’ ভোগ করছেন বলিউড তারকা আনুশকা শর্মা ও বিরাট কোহলি দম্পতি। শেষ চার মাস তাঁরা ঘরেই আছেন। এই আনুশকা বিরাটের চুল কেটে দিচ্ছেন তো এই বাড়ির উঠানে ক্রিকেট খেলছেন! অথচ বিয়ের প্রথম ছয় মাসে এই দম্পতি সংসার করতে পেরেছিলেন হাতে গুনে মাত্র ২১ দিন।

ভোগ সাময়িকীকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে আনুশকা সেসব দিনের কথা মনে করে বলেন, ‘বিয়ের পরও হয়তো ছুটির দিনে আমাদের একটু দেখা হলো। ও এক ফাঁকে সময় করে আমাকে দেখতে এল। বা আমি ছুটির দিনে কিংবা সময় পেলে ওর হোটেলে গিয়ে দেখা করে আসি। সময়টা খুব কঠিন ছিল। আমি রীতিমতো গুনে গুনে রেখেছি যে বিয়ের প্রথম ছয় মাসে আমরা মাত্র ২১ দিন একসঙ্গে সংসার করেছি। দুজনেরই তখন কাজের চাপ ছিল। আর একসঙ্গে কাটানো প্রতিটা মুহূর্ত ছিল “অমূল্য”। আমরা দেখা করে হয়তো একসঙ্গে দুপুরের বা রাতের খাওয়াটা সারতাম।’

অন্যদিকে ভোগকে বিরাট কোহলি বলেন, ‘আমরা খুব ভালো আছি। এর চেয়ে বেশি ভালো থাকা বোধ হয় যায় না। আর কীই–বা চাওয়ার থাকতে পারে? আমাদের সম্পর্কটা কেবল ভালোবাসার। আমাদের কয়েক বছরের চেনাজানা। কিন্তু মনে হয়, হাজার বছরের সম্পর্ক।’

৩২ বছর বয়সী আনুশকা শর্মার সময়টা দুর্দান্ত কাটছে। দীর্ঘদিন বড় পর্দার খোঁজ না মিললেও এই লকডাউনে প্রযোজক হিসেবে বেশ নাম করেছেন। ওয়েব সিরিজ পাতাল লোক আর সিনেমা বুলবুল—দুটিই বেশ নাম করেছে, প্রশংসাও কুড়িয়েছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.