ইউনিটের সদস্য কোভিড পজিটিভ, কোয়ারেন্টিনে অপূর্ব ও মেহজাবীন

বিয়ানীবাজারের ডাক ডেস্ক:

শুটিং চলাকালীন দ্বিতীয়ববারের মতো করোনা পরীক্ষা করা হলো। দ্বিতীয়বারের পরীক্ষায় ইউনিটের দুজন কোভিট ১৯ পজিটিভ আসে। তাই শুটিং বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। এরপর নাটকটির পরিচালকসহ মূল অভিনয়শিল্পী অপূর্ব ও মেহজাবীন কোয়ারেন্টিনে চলে গেছেন। পাশাপাশি নাটকটির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সবাইকে বাসায় নিজ নিজ বাড়িতে কোয়ারেন্টিনে থাকার অনুরোধ করেছেন নাটকটির প্রযোজক।

৮ জুলাই উত্তরার একটি হাউজে ‘প্রাণ প্রিয়’ নামে একটি নাটকের শুটিং সেটে এই ঘটনা ঘটেছে। অপূর্ব, মেহজাবীনরা আগেই ঘোষণা দিয়েছিলেন, প্রথম কাজে পুরো টিম করোনা পরীক্ষা করেই নামবে। যেই কথা, সেই কাজ। ৭ জুলাই করোনা নেগেটিভ নিয়ে ২২ জনের দল শুটিংয়ে নামে। জানা যায়, প্রথম দিন সন্ধ্যায় ‘প্রাণ প্রিয়’ নাটকের শুটিংয়ে দুজন সদস্য সামান্য অসুস্থবোধ করেন। ওই সময়ে ইউনিটের দায়িত্বে তাঁদের দ্বিতীয়বারের মতো করোনা পরীক্ষা করানো হয়। নাটকটির আর মাত্র দুটি দৃশ্য শুটিং বাকি ছিল। এমন সময় শুটিংয়ের শেষ দিন অর্থাৎ ৮ জুলাই সন্ধ্যায় দুজনের ফলাফল পজিটিভ আসে। তাই দৃশ্য দুটি বাদ রেখেই শুটিং বন্ধ ঘোষণা করেন নাটকটির প্রযোজক ও পরিচালক। ইউনিটের দায়িত্বে আক্রান্ত দুজনকে বাসায় পাঠিয়ে দেওয়া হয়। তবে ইউনিটের কেউই ওই দুজনের নাম প্রকাশ করতে চাননি।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে কোয়ারেন্টিন থেকে নাটকটির পরিচালক মিজানুর রহমান আরিয়ান বলেন, ‘আমরা মানবিক কারণেই দুজনের নাম প্রকাশ করতে চাইছি না। আর এটি আমাদের দুর্ভাগ্য। কারণ আমরা পুরো টিম করোনা পরীক্ষার ফলাফল নেগেটিভ নিয়েই শুটিংয়ে নেমেছিলাম। এর জন্য বাড়তি খরচও করেছে প্রোডাকশন। শুটিংয়ের প্রথম দিন সন্ধ্যায় হালকা অসুস্থবোধ করেন ইউনিটের দুজন। প্রযোজক নিজ থেকে দুজনকে আবারও করোনা পরীক্ষা করান। দ্বিতীয় দিন শুটিংয়ে সারা দিন দুজনের কারোরই করোনার লক্ষণ দেখা যায়নি। সন্ধ্যায় ফলাফল পজিটিভ আসে। সঙ্গে সঙ্গেই শুটিং বন্ধ করা হয়।’

বাসায় ফিরে পরিবারের সবার থেকে আলাদা থাকা শুরু করেছেন নাটকটির নায়ক-নায়িকা অপূর্ব ও মেহজাবীন। বুধবার রাতে মুঠোফোনে অপূর্ব বলেন, ‘নিরাপত্তা নিশ্চিত করেই শুটিংয়ে নেমেছিলাম। লোকেশনেও নিরাপত্তার কোনো ঘাটতি ছিল না। দ্বিতীয় দিন সারা দিন শুটিং করলাম। দুজনেই একদম ভালো ছিল। কোনো লক্ষণ বোঝা যায়নি। যাহোক, এখন তো কিছু করার নেই। কোয়ারেন্টিনে আছি। কাল–পরশু আমি ও মেহজাবীন দুজনই আবার পরীক্ষা করব। নেগেটিভ এলেও আরও কিছুদিন পর আরেকবার পরীক্ষা করব। কোনো সমস্যা না থাকলে তারপর শুটিংয়ে নামব।’ মেহজাবীন বলেন, ‘শুটিং বন্ধ করে গতকাল (৮ জুলাই) সন্ধ্যার পর থেকেই বাসায় আলাদা আছি। বিষয়টাকে মোটেও হালকাভাবে নিচ্ছি না। কাল বা পরশু আরেকবার করোনা পরীক্ষা করাব।’

 

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.