সোশ্যাল মিডিয়ায় বিয়ানীবাজারের এহসানুলের হৃদয়বিদারক লিখা

 

বিয়ানীবাজারের ডাক ডেস্ক:
  ‘এতিম হয়ে গেলাম’
গত ১৬/০৭/২০২১ ইং রোজ শুক্রবার আমার আব্বা আমাদের ছেড়ে চলে গেছেন মহান আল্লাহ পাক এর ডাকে সাড়া দিয়ে,গত ৩ /০৭/২০২১ ইং থেকে,আই,সি,ইউতে ছিলেন, উনার টেনশন করতে করতে আমার আম্মা ও হঠাৎ বাড়িতে পড়ে গিয়ে কমর এর হাড় এ ছিদ্র দরে বিছানায় ছিলেন পর দিন উনিও ব্রেইন স্টোক ও এক সাথে হার্ড এটাক করে গত ৪ দিন থেকে উনিও একই হাসপাতালে আই,সি,ইউতে আছেন ২ জন দুই আই,সি,ইউতে থাকা অবস্থায় হঠাৎ আব্বার শরীল বেশী অবনতি শুরু করে পরে উনি মারা যান,মাকে হাসপাতালে আই,সি,ইউতে রেখে আব্বা কে নিয়ে বাড়ি যাই আব্বার জানাজা করে কবর দিয়েই আবার সিলেট চলে আসি মায়ের কাছে, আব্বার মারা জাবার সময় মায়ের অবস্থা ও খুব খারাপ হয়ে যায়, আব্বা যে মারা গেছেন সেটি মাকে ও বলে আসতে পারি নাই মায়ের হাত মাতায় নিয়ে দোয়া নিয়ে আসলাম মাকে বলে আসলাম আম্মা জীবনের অনেক বড় একটি কাজ করতে যাচ্চি দোয়া করো, এমন হত বাগা আমরা আব্বা মারা গেছেন আম্মা কে বলে আসতে পারলাম না,একন মা জানে না বাবা নেই বাবা আর জীবনে আসবেন না প্রতিদিন কত মিথ্যে অভিনয় করতেছি মায়ের সামনে বলে বুঝাতে পারবো না, মহান আল্লাহ পাক আমার আব্বা কে যেন জান্নাতুল ফেরদৌস দান করেন, আর আমার মায়ের যেন নেক হায়াত দান করেন,
সবার কাছে আমার বাবা,ও মায়ের জন্য দোয়া চাইতেছি, আম্মার অবস্থা ও খারাপ,
করোনা রোগ যে কত ভয়ানক কেহ সামনে থেকে না দেখলে বুঝবেন না, প্রতি দিন ৪/৫ করে মারা জাচ্ছেন আমার চুখের সামনে শুধু সজন দের আহাজারি দেখতেছি, সব চেয়ে বড় কথা আমাদের বিয়ানীবাজার এর অনেক রুগি মারা গেছেন গত ৩/৪ দিন এ, শুধু একটি হাসপাতাল এ বিয়ানীবাজার এর এই অবস্থা হলে বাকি হাসপাতালে কি হবে চিন্তা করুন,আর কত রুগি হাসপাতালের নিচে এসে ফিরে জাচ্ছেন আই,সি,ইউ খালি না পেয়ে দেখে বড় খারাপ লাগতেছে অনেকে কল দিতেছে একটি বেড এর জন্য কিন্তুু কিছুই করার নেই বড় অসহায় লাগতেছে,
গত কাল থেকে আই,সি,ইউ খালি আছে তবে হাসপাতালে নতুন রুগি এড নিতেছে না কারন অক্সিজেন সংকট হয়ে যাচ্ছে,
সবাই কে সতর্ক হওয়ার জন্য বললে ও কেহ হচ্ছেন না ঈদের জন্য লকডাউন খুলে দেওয়া হয়েছে মহান আল্লাহ পাক না করুন ঈদের পর মানুষ মানুষ কে হত্তা করবে অক্সিজেন এর জন্য, ভারত এর চেয়ে ও বড় ধরনের ভয়ানক দৃশ্য বাকি রয়েছে আমাদের জন্য সামনে,আর আমাদের বিয়ানীবাজার এর ঘরে ঘরে একন অনেক রুগি দয়া করে সবাই সাবধান হন, বাড়িতে তাকুন মাক্স পড়ুন নিরাপদ থাকুন,,
আবার ও আমার বাবার জন্য দোয়া করবেন আর আমার আম্মার জন্য ও দোয়া করবেন,,
মহান আল্লাহ পাক আমাদের পরিবার এর উপর যে পরীক্ষা নিতেছেন আমরা আমাদের পরিবার মহান আল্লাহ পাক এর উপর খুশি আছি মহান আল্লাহ যা করেন ভালোর জন্যই করেন,
আলহামদুলিল্লাহ মহান আল্লাহ পাক রাব্বুল আলামিন এর কাছে আমরা খুশি,,
শুধু মায়ের ছায়া টা আমাদের উপর রেখো খুদা আর কিছু বলার নেই।।

আরও পড়ুন  খাসাড়ীপাড়া ওয়ার্ল্ডওয়াইড গ্রুপের রমজান উপলক্ষে অর্থ ও খাদ্য সামগ্রী বিতরন

 

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.