সিলেটে ভূমিকম্পে হেলে পড়লো ৬ তলা দুটি ভবন

মোট পড়া হয়েছে 118 

বিয়ানীবাজারের ডাক ডেস্কঃ

সিলেটে মাত্র ৫ ঘন্টার মধ্যে ৬ দফা ছোট-বড় ভূমিকম্পে দুটি ৬ তলা ভবন হেলে পড়েছে। নগরের পাঠানটুলা দর্জিপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পুলিশ ও সিলেট সিটি করপোরেশনের কর্মকর্তারা ভবন দুটি পরিদর্শন করেছেন।

এসময় তারা ভবনের বাসিন্দাদের দ্রুত নিরাপদ স্থানে সরে যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন। এছাড়া ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ কমিশনার বিএম আশরাফ উল্ল্যাহ তাহের এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, শনিবার ভূমিকম্পের ঝাঁকুনিতে পাঠানটুলা দর্জিপাড়া এলাকার ব্লক সি এর ১৬ ও ব্লক ৩ এর ৩ নম্বর বাসা হেলে পড়ার খবর পাওয়া যায়। বাসা দুটি ৬তলা বিশিষ্ট। খবর পেয়ে সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীসহ সিসিকের প্রকৌশলী ও পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এসময় ভবন দুটির বাসিন্দাদের নিরাপদ স্থানে সরে যেতে বলা হয়েছে।

এর আগে শনিবার (২৯ মে) সকাল ১০টা ৩৬ মিনিটের সময় প্রথম ভূমিকম্পটি অনুভব হয়। এ কম্পনের রেশ কাটতে না কাটতেই ১০টা ৫০ মিনিটে ফের কেঁপে ওঠে সিলেট। এরপর সকাল সাড়ে ১১ টায় ও ১১ টা ৩৪ মিনিটে দুটি ভূ-কম্পন অনুভূত হলে সিলেটজুড়ে মানুষের মাঝে আতঙ্ক দেখা দেয়। তবে এখন পর্যন্ত কোন ক্ষয়ক্ষতির খবর পাওয়া যায়নি।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী- রিখটার স্কেলে ১০.৩৬ মিনিটে ভূমিকম্পের মাত্রা ছিল ৩। ১০.৫০ মিনিটে ভূমিকম্পের মাত্রা ৪.১। এরপর ১১.৩০ মিনিটে হওয়া ভূমিকম্পের মাত্রা ছিল ২.৮। এছাড়া ১১টা ৩৪ মিনিটের ভূমিকম্পের মাত্রা ২ এর নিচে হওয়ায় সেটা গননায় নেয়া হয়নি। এছাড়া বেলা ১টা ৫৮ মিনিটে ফের ৪ মাত্রার কম্পন অনুভূত হয়। এরপর সোয়া ২টার দিকে আবারও ভূমিকম্প হলেও সেটা রিখটার স্কেলে ২ মাত্রার নিচে হওয়ায় গণনায় নেয়নি আবহাওয়া অধিদপ্তর।

সিলেটের জ্যেষ্ঠ আবহাওয়াবিদ সাঈদ আহমদ চৌধুরী জানান- আজকের ভূমিকম্পের উৎপত্তিস্থল ছিল সিলেট অঞ্চলে এবং এর বিস্তার ১৩ কিলোমিটার। সিলেট ভারতের সীমান্তবর্তী ডাউকি প্লেটের খুব কাছাকাছি হওয়ায় বড় ধরনের ঝুঁকিতে উত্তরপূর্বের এই জনপদ। এমন বাস্তবতায় তিনি সবাইকে বিল্ডিং কোড মেনে ভবন তৈরীর আহবান জানান।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *