শাবিপ্রবিতে ‘চাষাভুষার টং’ চালু করে সাড়া ফেলল শিক্ষার্থীরা

শাবিপ্রবিতে ‘চাষাভুষার টং’ চালু করল শিক্ষার্থীর

শাবিপ্রবি উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদের পদত্যাগের দাবিতে শিক্ষার্থীদের চলমান আ’ন্দোলনের মধ্যেই ক্যাম্পাসের ভেতরের খাবারের দোকান বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

এর প্রতিবাদ হিসেবে মঙ্গলবার রাতে ‘চাষাভুষার টং’ নামে ভ্রাম্যমাণ দোকান চালু করেছেন শিক্ষার্থীরা।

এ দোকানে চা, রুটি, বিস্কিটসহ হালকা খাবার বিক্রি করা হচ্ছে। ক্যাম্পাসে অবস্থানরত শিক্ষার্থীরা সেখান থেকে খাবার কিনছেন।

‘চাষাভুষার টং’ দোকানের উদ্যোক্তারা জানান, আ’ন্দোলন বন্ধে ক্যাম্পাসে খাবারের দোকান বন্ধ করে দিয়েছে প্রশাসন। এতে শিক্ষার্থীদের খাবার পেতে সমস্যা হচ্ছে। আ’ন্দোলনের খবর সংগ্রহে আসা গণমাধ্যমকর্মীরাও সমস্যায় পড়েছেন। তাই প্রতিবাদ হিসেবে ভ্রাম্যমাণ দোকানটি চালু করা হয়েছে।
ক্যাম্পাসে খাবারের দোকান বন্ধের বিষয়ে কিছুই জানেন না বলে মন্তব্য করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. আলমগীর কবির।

ধারণা করা হচ্ছে, গত ১৯ জানুয়ারি শাহ’জালাল বিজ্ঞান ও প্রযু’ক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. লায়লা আশরাফুনের একটি মন্তব্যকে কেন্দ্র করে দোকানের এমন নাম দেওয়া হয়েছে।
আ’ন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের বি’রুদ্ধে অশালীন মন্তব্যের অ’ভিযোগ এনে তিনি বলেছিলেন, ‘আম’রা সাধারণ শিক্ষক। আম’রা সম্মানের জন্য কাজ করি এবং সম্মানের জন্যই এ পেশায় এসেছি। আম’রা চাষাভুষা নই যে, আমাদের যা খুশি তাই বলবে।

 

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.