মাধবকুণ্ড জলপ্রপাতের ছড়া থেকে করোনা রোগীর লাশ উদ্ধার, রহস্য

মোট পড়া হয়েছে 33 

বিয়ানীবাজারের ডাক ডেস্ক:

মৌলভীবাজারের বড়লেখার মাধবকুণ্ড জলপ্রপাতের ছড়া থেকে ফয়ছল (২৯) নামের এক যুবকের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। সে চাঁদপুর জেলার নোয়াগাঁও গ্রামের আলী আকবরের ছেলে। রোববার (১১ এপ্রিল) দুপুরে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে। ফয়ছল করোনা রোগী ছিলেন বলে জানা গেছে

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, রোববার সকালে মাধবকুণ্ড খাসিয়া পুঞ্জি সংলগ্ন মাধবকুণ্ড ছড়ায় এক যুবকের লাশ পড়ে থাকতে দেখেন স্থানীয়রা। পরে স্থানীয় লোকজন পুলিশকে খবর দেন। খবর পেয়ে পুলিশ সেখানে গিয়ে দুপুরে লাশ উদ্ধার করে। লাশের গায়ে আঘাতের কোনো চিহ্ন পাওয়া যায়নি।

পুলিশের সূত্র জানিয়েছে, লাশের সাথে থাকা ব্যাগে হাসপাতালের একটি কাগজ পাওয়া গেছে। এতে দেখা গেছে, করোনার উপসর্গ নিয়ে তিনি ৬ এপ্রিল হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। পরদিন ৭ এপ্রিল হাসপাতাল থেকে চলে আসেন।

স্বজনের বরাত দিয়ে পুলিশ জানিয়েছে, মৌলভীবাজারের বর্ষিজোড়া এলাকায় এক আত্মীয়ের বাড়িতে ওই যুবক বেড়াতে আসেন। সে ভবঘুরের মতো ছিল। ঘুরতে ঘুরতে হয়তো মাধবকুণ্ডে চলে আসে।

বড়লেখা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহাঙ্গীর হোসেন সরদার বলেন, ‘যুবকের দেহে আঘাতের কোনো চিহ্ন পাওয়া যায়নি। ওই যুবক করোনা রোগী। আইসোলেশনে ভর্তি ছিল। বিশেষজ্ঞ ডাক্তার দেখানো হয়েছে। তারা ধারণা করছেন- শ্বাসকষ্টে মারা গেছেন। ছড়ার বড় নালায় পানি বেশি। ধারণা করা হচ্ছে, এপার থেকে ওপারে যেতে হয়তো আর পারেননি। ওখানে পড়েই মারা যান। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। প্রতিবেদন পাওয়া গেলে মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে।’

সুএ: সিলেটভিউ

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *