বিয়ানীবাজারে চুরির গরু কসাইখানায় বিক্রি, আটক ১

বিয়ানীবাজারের ডাকঃ

সিলেটের বিয়ানীবাজার উপজেলায় চুরি করা গরু জবাই করে কসাইখানায় বিক্রির অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে ১ জনকে গ্রেফতার করেছে বিয়ানীবাজার থানা পুলিশ। জড়িত অপর আসামীরা পলাতক রয়েছে। গ্রেফতারকৃত রুহেল আহমদ (৩৫) কে সোমবার আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

জানা যায়, বিয়ানীবাজার উপজেলার শেওলা ইউনিয়নের ঢেউনগর গ্রামের গোয়ালঘর থেকে গত শুক্রবার একসাথে ৩টি গরু চুৃরি হয়। এ ঘটনায় গরুর মালিক জিবান আহমদ থানায় সাধারণ ডায়রী করে খোঁজাখুজি শুরু করেন। রবিবার দুপুরে তিনি পৌরশহরের কিচেন মার্কেটস্থ কসাইখানায় গিয়ে চুরি হওয়া একটি গরুর পা, মাথা ও রশি সনাক্ত করেন।

এরপর বিষয়টি তিনি পুলিশকে অবহিত করলে গা ঢাকা দেন কসাইখানার মালিক সুমন। রাতে জিবান আহমদ বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলার প্রধান আসামী ও গ্রেফতার রুহেল আহমদ চুরি করা গরু জবাই করে মাংস বিক্রি করছেন বলে পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানান। মামলার অপর আসামী জকিগঞ্জের (বর্তমানে বিয়ানীবাজার পৌরশহরের মুফচ্ছিল মার্কেট) কসাই সুমন (৩৬) ও একই এলাকার শাহগলি কোনাগ্রামের হবি আলীর ছেলে তাজ উদ্দিন (৩৯) পলাতক।

চুরি যাওয়া গরুর মালিক জিবান আহমেদ বলেন, গত শুক্রবার রাতে আমার গোয়াল ঘর থেকে ৩টি গরু চুরি হয়। অনেক খুজাঁখুজিঁর পর গরু পাওয়ার আশা ছেড়ে দিয়েছিলাম কিন্তু রবিবার হঠাৎ পৌরসভার কিচেন মার্কেটের গিয়ে আমার গরুর পায়ের খূর, রশি ও মাথা দেখে সনাক্ত করি আমার গরু জবাই করে বিক্রি করা হচ্ছে। পরে পুলিশে খবর দিলে পুলিশ রুহেলকে গ্রেফতার করে।

 

বিয়ানীবাজার থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মেহেদী হাসান জানান, গ্রেফতারকৃতদের কাছ থেকে স্থানীয়ভাবে চুরি হওয়া গরুর বিষয়ে অনেক তথ্য পাওয়া গেছে। অপর আসামীদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.